এখন আর বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ নেই: মান্না

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, আওয়ামী লীগ এখন আর বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ নেই। এটা এখন পুলিশ লীগের আওয়ামী লীগ। পুলিশ সাপোর্ট না করলে আওয়ামী লীগকে আর খুঁজে পাওয়া যাবে না।

শুক্রবার প্রেসক্লাবে এক আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি)। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ড. কামাল হোসেন।

মান্না বলেন, পতাকা উত্তোলন দিবস জেএসডি ছাড়া আর কেউ পালন করে না। অথচ জাতীয় ভোট দিবস পালন করা হচ্ছে। স্বাধীনতার ইতিহাসও বিকৃত করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু ৬ দফা দেয়ার পর তার কেন্দ্রীয় কমিটি প্রথমে সেটি মানেনি। ছাত্রদের চাপে পরে তারা মানতে বাধ্য হয়। অথচ সেই আ স ম রব, শাহজাহান সিরাজ, ড. কামালদের অবদান ইতিহাসে নেই।

তিনি বলেন, রাজনীতিতে আওয়ামী লীগ মেধাশূন্য, জনশূন্য ও মানুষের ভালোবাসা শূন্য হয়ে গেছে। বঙ্গবন্ধুর নাম ভাঙিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলে ব্যবসা করছে। এখন তারা ‘ভোট চোর’ নয়, ‘ভোট ডাকাত’। ৩০ ডিসেম্বর পুলিশসহ সব রাষ্ট্রযন্ত্রকে কাজে লাগিয়ে জনগণের ভোট ডাকাতি করেছে। এই আওয়ামী লীগ এখন আর বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ নেই। এটা এখন পুলিশ লীগের আওয়ামী লীগ। পুলিশ সাপোর্ট না করলে আওয়ামী লীগকে আর খুঁজে পাওয়া যাবে না। নির্বাচনে বিজিবি ও সেনাবাহিনীর ভ‚মিকা এমন হবে সেটা বুঝতে পারিনি।

জেএসডির সিনিয়র সহসভাপতি এম এ গোফরানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, বিকল্পধারার সাধারণ সম্পাদক শাহ আহমেদ বাদল প্রমুখ।

সিইসিকে জোকার বললেন জাফরুল্লাহ

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদাকে ‘জোকার’ বলে মন্তব্য করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে ‘হাস্যকর’ আখ্যা দিয়ে তিনি বলেছেন, নির্বাচনে কম ভোটার উপস্থিতির বিষয়ে ‘জোকার’ সিইসি বলেছেন- ভোটার আসল, কি আসল না সেটা তার দেখার বিষয় নয়।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি)। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ড. কামাল হোসেন।

জাফরুল্লাহ বলেন, মুক্তিযুদ্ধ করা হয়েছিল গণতন্ত্রের জন্য। কিন্তু আজ গণতন্ত্র নেই, মানবাধিকার নেই। কয়েক দিন আগে গণশুনানির জন্য হল ভাড়া পাইনি। গায়েবি-আজগুবি মামলা দিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের জেলে রাখা হয়েছে।

জেএসডির সিনিয়র সহসভাপতি এম এ গোফরানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, বিকল্পধারার সাধারণ সম্পাদক (একাংশ) শাহ আহমেদ বাদল প্রমুখ

সরকার সংকটে আছে: ড. কামাল

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, বর্তমান সরকার সংকটে আছে। কারণ তারা বিনা ভোটে নির্বাচন করে ক্ষমতায় এসেছে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ড. কামাল বলেন, সরকার এখন ব্যাংকের সব টাকা দিয়েও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে একটা জনসভা করলে লোক পাবে না। আর আশঙ্কা আছে যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছে- তা বাস্তবায়ন করতে পারবে কিনা। জনগণ যা চায় সরকার ঠিক তার উল্টোটাই করছে।

স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে জেএসডি। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ড. কামাল হোসেন।

ড. কামাল বলেন, যে ঐক্যের ভিত্তিতে দেশ স্বাধীন হয়েছিল সেই ঐক্যের ভিত্তিতে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশ পরিচালনা করতে হবে। দেশের স্বাধীনতা রক্ষা ও সুসংহত করার জন্য ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

এ সময় ‘জনগণ ক্ষমতার মালিক দিবস’ পালন করারও প্রস্তাব দেন তিনি। ড. কামাল বলেন, মার্চে একদিন জনগণ ক্ষমতার মালিক দিবস পালন করা যায়। এদিন পাড়ায়-পাড়ায়, মহল্লায়-মহল্লায়, গ্রামে-গ্রামে গিয়ে মানুষকে বোঝাতে হবে তারা দেশের মালিক।

জেএসডির সিনিয়র সহসভাপতি এম এ গোফরানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, বিকল্পধারার সাধারণ সম্পাদক (একাংশ) শাহ আহমেদ বাদল প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*