নুসরাত হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত ৮ আসামিই গ্রেপ্তার

ফেনীর সোনাগাজীতে আগুনে পুড়িয়ে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনায় করা মামলার এজাহারভুক্ত আট আসামিকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. শাহ আলম আজ বৃহস্পতিবার সকালে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নুসরাত হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত সাত নম্বর আসামি হাফেজ আবদুল কাদেরকে ঢাকার মিরপুর থেকে গতকাল বুধবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়। আবদুল কাদেরসহ এ হত্যাকাণ্ডে এ পর্যন্ত ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আবদুল কাদের সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের শিক্ষক। ৫ এপ্রিল আবদুল কাদেরের কক্ষে বসে হত্যাকারীরা নুসরাত হত্যার পরিকল্পনা করেন। হত্যাকাণ্ডের দিন, অর্থাৎ ৬ এপ্রিল কাদেরের দায়িত্ব ছিল অন্যদের সঙ্গে মাদ্রাসার গেট পাহারা দেওয়া। এ বিষয়গুলো গত রোববার মামলার অন্যতম প্রধান দুই আসামি নুর উদ্দিন ও শাহাদত হোসেন ওরফে শামীমের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে জানা গেছে।

সোনাগাজীতে এখনো মানববন্ধন চলছে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সংগঠনটি সোনাগাজীতে নুসরাত হত্যার বিচারের দাবিতে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করবে।

নুসরাত হত্যায় ৫ দিনের রিমান্ডে শামীম
ফেনীর সোনাগাজীতে আগুনে পুড়িয়ে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া আসামি মো. শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন বিচারিক আদালত। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. শাহ আলম আজ বৃহস্পতিবার এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আজ দুপুর ১২টায় মো. শামীমকে ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম সরাফ উদ্দিন আহমদের আদালতে নেওয়া হয়। শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদে মো. শাহ আলম সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন জানালে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনায় করা মামলার এজাহারভুক্ত আট আসামিকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডে এ পর্যন্ত ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সোনাগাজীতে এখনো মানববন্ধন চলছে। বিকেলে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সংগঠনটি সোনাগাজীতে নুসরাত হত্যার বিচারের দাবিতে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*