জাকির নায়েক নিয়ে বিতর্ক মালয়েশিয়ায়

ধর্মতত্ত্ব প্রচারক ডা. জাকির নায়েকের উসকানিমূলক মন্তব্যে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে মালয়েশিয়ায়। সেদেশের কোটাবারুতে সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেছেন, ভারতে মুসলমানদের তুলনায় মালয়েশিয়ায় হিন্দুরা দ্বিগুণ সুযোগ-সুবিধা ভোগ করে। তিনি আরও বলেন, মালয়েশিয়ার হিন্দুরা ডা. মাহাথির মোহাম্মদের চাইতে নরেন্দ্র মোদির প্রতি বেশি অনুগত।

মালয়েশিয়ার ন্যাশনাল প্যাট্রিয়টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি দাতুক মোহাম্মদ আরশাদ রাজি বলেন, জাকির ভারতীয় বংশোদ্ভূত মালয়েশীয়দের বিরুদ্ধে কথা বলে প্রধানমন্ত্রীর সুনজরে আসার চেষ্টা করছেন। এ ধরনের স্পর্শকাতর বিষয়ে কথা বলার কোনো অধিকার জাকিরের নেই। তাকে এ ধরনের কথাবার্তা বলা বন্ধ করতে হবে।

ব্যবস্থা নেওয়া উচিত সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, আমরা সব শ্রেণির মানুষের স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করছি। গতকাল শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে অ-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও চেয়ারম্যানদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সংক্ষিপ্ত ব্রিফিংয়ে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ ছাড়া কোরবানির পশুর চামড়া সিন্ডিকেটের বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উচিত এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া। চামড়া নিয়ে যে সংকট তৈরি হয়েছে সেটা চামড়া শিল্পের মালিকদেরই দেখার কথা।

কাঁচা চামড়া রপ্তানির ত্বরিত সিদ্ধান্তকে খুব ভালো সিদ্ধান্ত হিসেবে মনে করেন অর্থমন্ত্রী। অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যার যার জায়গা থেকে এ দেশের মানুষের উন্নতির জন্য কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের দেশের অর্থনীতিকে একটা মজবুত জায়গায় আনার ক্ষেত্রে আপনাদের অবদান অনেক বেশি। এ দেশের অর্থনীতি যে কোনো বিচারে ভালো অবস্থানে রয়েছে বলেও মনে করেন তিনি।

কিন্তু কয়েকটি লিজিং প্রতিষ্ঠানের অবস্থা নাজুক। সেগুলোর ব্যাপারে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। ইতিমধ্যে আমরা পিপলস লিজিংয়ের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বাকিগুলোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিলে পরে জানানো হবে। ব্যাংকিং কমিশন গঠনের বিষয়ে তিনি বলেন, বাজেট বক্তৃতাতে আমি বলেছি ব্যাংকিং কমিশন গঠন করা হবে। অবশ্যই সে কমিশন গঠন করা হবে। কিন্তু সেটা করতে আরও কিছুটা সময় প্রয়োজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*